Bidyapeeth Baithaki

বিদ্যাপীঠ বৈঠকী-৩
অন্তরঙ্গ আলাপে গুণিজনআলাপসূত্র:
মুক্তিযুদ্ধে নারী : বাংলাদেশ হাসপাতাল, বিশ্রামগঞ্জ, ১৯৭১
অতিথি:
সুলতানা কামাল, সৈয়দা কামাল, খুকু আহমেদ
মিনু বিল্লাহ, আসমা নিসার ও রেশমা আমিন
সময়:
১৮ মার্চ ২০১৯
সোমবার বিকেল ৫.০০টা
স্থান:
জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক বিদ্যাপীঠ
বাড়ি ৬০, সড়ক ৭/এ (রবীন্দ্র সরোবরের পাশে)
ধানমণ্ডি, ঢাকা ১২০৯
মহান স্বাধীনতার মাস মার্চ উপলক্ষ্যে এবারের ‘বিদ্যাপীঠ বৈঠকী’তে আসছেন ১৯৭১ সালে বিশ্রামগঞ্জ ‘বাংলাদেশ হাসপাতালে’র কয়েকজন অনন্য সংগ্রামী নারী, মুক্তিসংগ্রামী- সুলতানা কামাল, সৈয়দা কামাল, খুকু আহমেদ, মিনু বিল্লাহ, রেশমা আমিন ও আসমা নিসার।

অংশগ্রহণ করতে চাইলে এখনই রেজিস্টেশন করুন। প্রতি বৈঠকীর ব্যাপ্তি ৯০ মিনিট। এক বৈঠকীতে সর্বোচ্চ ৪০ জনের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে। শুধুমাত্র প্রথম ৪০ জন আবেদনকারীই অংশগ্রণ করতে পারবেন। এখনই নিবন্ধন করতে ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পাতায় ইনবক্স করে পাঠিয়ে দিন আপনার নাম, প্রাতিষ্ঠানিক সম্পৃক্ততা, ঠিকানা ও ফোন নম্বর ।

অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে কোনো ফি/চার্জ নেয়া হবে না।

সমাজ, রাষ্ট্র, ইতিহাস, দর্শন, শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি নানা ক্ষেত্রে দেশের বিশিষ্টজনদের সঙ্গে তরুণদের একান্ত আলাপনের সুযোগ করে দিতে জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের নতুন আয়োজন বিদ্যাপীঠ বৈঠকী।

প্রতি মাসে একটি বৈঠকী অনুষ্ঠিত হবে।
প্রতি বৈঠকীতে এক কিংবা একাধিক অতিথি থাকবেন। আলাপের সূত্র
হিসেবে পূর্বেই নির্ধারণ করা হবে একটি বিষয়। নিরানন্দ ক্লাসরুম কিংবা দমবন্ধ বক্তৃতানুষ্ঠান নয়; চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে নির্ভার অন্তরঙ্গ পরিবেশে গুণিজনদের সঙ্গে সময় কাটানোর অসাধারণ সুযোগ।

প্রতি বৈঠকীর ব্যাপ্তি ৯০ মিনিট। এক বৈঠকীতে সর্বোচ্চ ৪০ জনের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে। শুধুমাত্র প্রথম ৪০ জন আবেদনকারীই অংশগ্রণ করতে পারবেন। এখনই নিবন্ধন করতে ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পাতায় ইনবক্স করে পাঠিয়ে দিন আপনার নাম, প্রাতিষ্ঠানিক
সম্পৃক্ততা, ঠিকানা ও ফোন নম্বর ।

অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে কোনো ফি/চার্জ নেয়া হবে না।

বিদ্যাপীঠ বৈঠকী

অন্তরঙ্গ আলাপে গুণিজন

 

সমাজ, রাষ্ট্র, ইতিহাস, দর্শন, শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি নানা ক্ষেত্রে দেশের বিশিষ্টজনদের সঙ্গে তরুণদের একান্ত আলাপনের সুযোগ করে দিতে জ্ঞানতাপস আব্দুর রাজ্জাক ফাউন্ডেশনের নতুন আয়োজন বিদ্যাপীঠ বৈঠকী।

প্রতি মাসে, সাধারণত বুধবারে, একটি বৈঠকী অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বৈঠকীতে এক কিংবা একাধিক অতিথি থাকবেন। আলাপের সূত্র হিসেবে পূর্বেই নির্ধারণ করা হবে একটি বিষয়। নিরানন্দ ক্লাসরুম কিংবা দমবন্ধ বক্তৃতানুষ্ঠান নয়; চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে নির্ভার অন্তরঙ্গ পরিবেশে গুণিজনদের সঙ্গে সময় কাটানোর অসাধারণ সুযোগ।

প্রতি বৈঠকীর ব্যাপ্তি ৯০ মিনিট। এক বৈঠকীতে সর্বোচ্চ ৪০ জনের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে। শুধুমাত্র প্রথম ৪০ জন আবেদনকারীই অংশগ্রণ করতে পারবেন। এখনই নিবন্ধন করতে ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পাতায় ইনবক্স করে পাঠিয়ে দিন আপনার নাম, প্রাতিষ্ঠানিক সম্পৃক্ততা, ঠিকানা ও ফোন নম্বর ।

অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে কোনো ফি/চার্জ নেয়া হবে না।

Events